কুষ্টিয়াতে ফলের দোকানে রাখা ড্রামের ভিতর থেকে এক ব্যক্তির জবাই করা লাশ উদ্ধার

0
4373

মৃত্যু ব্যাক্তির ঘাতক তারই আপন খালাতো ভাই !!


নিজস্ব প্রতিবেদক : বাংলা অল টাইম নিউজ ডটকম
খন্দকার মারিফুজ্জামান,কুষ্টিয়া প্রতিনিধি:-কুষ্টিয়া জেলার সদর উপজেলার চৌড়াহাস মোড় নামক স্থান থেকে এক ব্যক্তির জবাই করা লাশ উদ্ধার করেছে কুষ্টিয়ার পুলিশ ৷

বিস্তারিত:- কুষ্টিয়া শহরের চৌড়হাস মোড় এলাকার একটি ফলের দোকান থেকে রবিউল ইসলাম নামে এক ফল ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

আজ মঙ্গলবার বিকেল ৪টার দিকে লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে আপন খালাতো ভাই নুর আলমকে আটক করেছে পুলিশ।

রবিউল ইসলামকে হত্যার পর রবিউলের লাশ দোকানের পিছনে একটি ড্রামে রেখে বালু ফেলে চাপা দিয়ে রাখা হয়।

কুষ্টিয়া মডেল থানার পুলিশ ও এলাকাবাসীরা বাংলা অলটাইম নিউজকে জানান, আজ সকালে বাড়ি থেকে দোকানে আসে রবিউল। এরপর খালাতো ভাই নুর আলম পুর্ব বিরোধের জের ধরে তাকে জবাই হত্যা করে প্লাষ্টিকের ড্রামে লাশ রেখে বালি চাপা দিয়ে দোকানের পিছনেই লুকিয়ে রাখে।

 

 

কুষ্টিয়া মডেল থানার পুলিশ এসে লাশ ভর্তি ড্রামটি বের করে আনে। পরে সুরতহাল শেষে লাশ কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়।

রবিউল ইসলামের বাড়ি মাদারিপুর জেলার টেকেরহহাট উপজেলার শংকরদি গ্রামে। চৌড়হাস এলাকায় মামা নুর হোসেনের বাসায় খাকতো দুই খালাতো ভাই। মামা-ভাগ্নে নামে ফলের একটি দোকান চালাতো তারা।

জানা যায়, মৃত্যু ব্যাক্তির ঘাতক তারই আপন খালাতো ভাই । আপন খালাতো ভাইয়ে নির্মমতা, হাত পা বেধে জাবাই করে খুন করে প্লাস্টিকের ড্রামের মধ্যে ভরে বালু চাপা দিয়ে লাশ গুমের চেষ্টা ।

সদর উপজেলার চৌড়াহাস মোড়ে ফলের দোকানে একটি প্লাস্টিকের ড্রামের ভিতর থেকে এক ব্যক্তির জবাই করা লাশ উদ্ধার করেছে ।