কুষ্টিয়াতে মহাসড়কের মরণ ফাঁদে এবার প্রাণ দিল এক মহিলা সাথে বাইক চালক আহত,যাত্রী দুর্ভোগ চরমে !

0
2288


কুষ্টিয়ার মহাসড়কে যাত্রী দুর্ভোগ চরমে !!



সারা বাংলা ডেস্ক : বাংলা অলটাইম নিউজ ডটকম আপন চৌধুরী,স্টাফ রিপোর্টার:- কুষ্টিয়া জেলার গণমাধ্যেমে বার বার উঠে আসছে মহাসড়ক ও আঞ্চলিক সড়কের বেহাল দশা’র চিত্র এবং সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত-এর খবর। কুষ্টিয়ার মহাসড়কে মৃত্যুর মিছিল থামছে না কিছুতেই।

এর জন্যে কী বা কে দায়ী? করণীয়ই-বা কী?

কুষ্টিয়ার বারখাদা থেকে শুরু করে দশমাইল পর্যন্ত অপরদিকে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের সংলগ্ন মধুপুর বাসস্ট্যান্ড থেকে শুরু পুলিশ লাইন মোড় পর্যন্ত । মহাসড়কের মরণ ফাঁদে এবার প্রাণ দিতে হল এক মহিলা তার সাথে বাইক চালক গুরুতর আহত হয়েছে বলে জানা যায় ।

কুষ্টিয়া জেলার সদর উপজেলার বারখাদার পালপাড়া সেচ সম্প্রসারণ অফিসের সামনে পাথর বোঝাই ট্রাক ও মটরসাইকেল সংঘর্ষে রোজিনা( ৩০) নামে এক মহিলা নিহত ও বাইক চালক ওয়াহেদ (৩০) গুরুতর আহত হয়েছে ।

নিহতের বাড়ি কুষ্টিয়া পল্লী বিদ্যুতের সামে বলে জানিয়েছেন নিহতের স্বামী মিন্টু (৩৪)।

অন্যদিকে,কুষ্টিয়ার অধিকাংশ মহাসড়ক ও আঞ্চলিক সড়কের এখন বেহাল দশা। সংস্কারের অভাবে বিভিন্ন স্থানে দেখা দিয়েছে খানাখন্দ আর অসংখ্য গর্ত। আবার কিছু সড়কে সংস্কার হলেও তা কাজে আসেনি।

এতে ভোগান্তির শেষ নেই চালক ও যাত্রীদের। খোদ সড়ক বিভাগের হিসেবে, মহাসড়ক ও আঞ্চলিক সড়ক মিলিয়ে অন্তত একশ’ ৮ কিলোমিটার পথে যাত্রী দুর্ভোগ চরমে।

কুষ্টিয়া-ঝিনাইদহ মহাসড়কের প্রায় ৪৩ কিলোমিটার পথ কুষ্টিয়ার আওতাধীন। অথচ সংস্কারের নামে প্রতিবছর কোটি টাকা ব্যয় হলেও মহাসড়কটি এখন অনেকটাই মরণ ফাঁদ।

বিশেষ করে কুষ্টিয়ার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের সংলগ্ন মধুপুর বাসস্ট্যান্ড থেকে শুরু করে ভাদালিয়া হয়ে পুলিশ লাইন মোড় পর্যন্ত বিভিন্ন স্থানে খানাখন্দ। গর্তের সংখ্যাও একেবারে কম নয়।

বর্ষা মৌসুমে এ মহাসড়কের বারখাদা থেকে শুরু করে কদমতলা দশমাইল পর্যন্ত সৃষ্ট খানাখন্দে পানি জমে অধিকাংশ স্থানে পিচ উঠে ছোট-বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে।

Leave a Reply