আনাদোলু এজেন্সির সাংবাদিকের ওপর উগ্রবাদী ইহুদিদের হামলা

ইসরাইলে তুর্কি বার্তা সংস্থা আনাদোলু এজেন্সির এক সাংবাদিকের ওপর হামলা চালিয়েছে উগ্রবাদী ইহুদিরা। ইসরাইলে কোনো বিচার ছাড়াই বন্দী এক ফিলিস্তিনি ব্যক্তি অনশন করে অসুস্থ হলে তার খবর সংগ্রহ করতে হাসপাতালে যান ওই সাংবাদিক। তখনই তার ওপর হামলা করে উগ্রবাদী ইহুদিরা। বুধবার এ হামলার ঘটনা ঘটে।

বিনা বিচারে কারাগারে বন্দী এক ফিলিস্তিনি ব্যক্তি লাগাতার অনশন করে অসুস্থ হয়ে গেছেন। এখন তিনি ইসরাইলের রাজধানী তেল আবিবের আসাফ হারফেহ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। এ বিষয়ে খবর সংগ্রহ করতে হাসপাতালে যান আনাদোলু এজেন্সির সাংবাদিক ফয়েজ আবু রমেলেহ। তিনি ওই হাসপাতালে অবস্থান করার সময় উগ্রবাদী ইসরাইলি ইহুদিদের সাথে তার কথা কাটাকাটি হয়। যখন উগ্রবাদী ইহুদিরা এটা জানতে পারেন যে তিনি আনাদোলু এজেন্সির সাংবাদিক ও ক্যামেরাম্যান। তখন তার ওপর নির্মমভাবে আক্রমণ করে ওই ইসরাইলি ইহুদিরা। তাকে তারা বেদম মারপিট করেছে এবং অশ্রাব্য ভাষায় গালিগালাজও করেছে।

এরপর পুলিশের হস্তক্ষেপের কারণে ইসরাইলি ইহুদিরা তাকে ছেড়ে দেয়। এ সময় দু’উগ্রবাদী ইহুদিকে গ্রেফতার করে পুলিশ। মারাত্মক আহত ফয়েজ আবু রমেলেহকে প্রথমিক চিকিৎসা দেয়ার পর হাসপাতালে নেয়া হয়েছে।

বিনা বিচারে কারাগারে বন্দী ফিলিস্তিনি হিশাম আবু হাওয়াশর বিষয়ে খবর সংগ্রহ করছিলেন ফয়েজ আবু রমেলেহ। হিশাম আবু হাওয়াশকে বিনা বিচারে ইসরাইলি কারাগারে আটক করার কারণে তিনি প্রতিবাদ জানিয়ে ১৪১ দিন অনশন করেন। মূলত, হিশামকে ইসরাইলের কুখ্যাত প্রশাসনিক আদেশ আইন অনুসারে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ আইন অনুসারে যে কাইকে বিনা বিচারে আটক করা যায়।

এদিকে দীর্ঘ দিন অনশন করার কারণে হিশাম আবু হাওয়াশ এখন অসুস্থ। তিনি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

সূত্র : আনাদোলু এজেন্সি, হারেৎজ