এপির মাধ্যমে শিশুদের কেন্দ্র করে নানা মুখী উন্নয়ন কার্যক্রম পরিচালনা

ইমরান হোসেন বাগেরহাট জেলা প্রতিনিধি

ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশ কচুয়া এপির মাধ্যমে দীর্ঘদিন ধরে শিশুদের কেন্দ্র করে নানা মুখি উন্নয়ন কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে।ইতিমধ্যে নানা প্রশংসা পেয়েছে বাংলাদেশে কাজকরা এ আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংস্থাটি।
সংস্থাটি বিভিন্ন ইতিবাচক উন্নয়নকে টেকসই রূপদিতে অর্থনৈতিক উন্নয়নের পাশাপাশি কাজ করছে স্বাস্থ্য,পুষ্টি ও জীবন দক্ষতা মূলক শিক্ষা ক্ষেত্রে।তাদের পরিচালিত স্বাস্থ্য প্রকল্প(HNW) এর আওতায় কচুয়া উপজেলার ৭ টি ইউনিয়নের মধ্যে ৫ টিতে বছরে ৬০ টি উঠান বৈঠকের মাধ্যমে শিশু ও মায়েদের নিয়ে পরিচালিত হচ্ছে এসকল পিডি হার্থ সেশন কার্যক্রম।এর আওতায় উপজেলায় বছরে মোট ৬০০ শিশু সরাসরি পুষ্টির আওতায় আসছে একি সাথে এসকল শিশুদের মায়েদের মধ্যে এবিষয়ে সচেতনতা বৃদ্ধি পাচ্ছে।প্রকল্পটির মাধ্যমে মোটাদাগে যে উন্নয়ন সামনে আসে এর মধ্যে রয়েছে অ-পুষ্ট শিশুদের পুষ্টির আওতায় আনা,পুষ্টির স্বাভাবিক অবস্থা ধরে রাখা,১২ দিন পরিচালিত সেশন শেষে ১২ দিনের মাথায় প্রতিটি শিশুর ৩০০-৪০০ গ্রাম ওজন বৃদ্ধি পাওয়া।এছাড়াও যে সকল শিশু মারাত্মক অপুষ্টিতে ভুগছে তাদের চিকিৎসা নেওয়ার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে এবং পিডি হার্থ সেশনে সরাসরি মায়েদের সামনে পুষ্টি সমৃদ্ধ খিচুড়ি রান্নার কৌশল সম্পর্কে ধারণা দেওয়া হচ্ছে।উঠান বৈঠকের মাধ্যমে মায়েদের অভ্যাসগত পরিবর্তন হচ্ছে এর মধ্যে উল্লেখ যোগ্য বিষয় হচ্ছে খাদ্যে পুষ্টির অভাব,শিশুদের লালন-পালন,পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতা,চিকিৎসা নেওয়া সহ বিভিন্ন দিকসমূহ।(HNW) এর মাধ্যমে ৬ থেকে ৩৬ মাস বয়সের শিশুদের নিয়ে সেশন পরিচালনা ছাড়াও বাড়ি পরিদর্শন প্রকৃয়া চলমান রয়েছ।
সংস্থাটি স্পন্সরশীপ প্রকল্পের মাধ্যমে শিশুদের নিয়ে LSBE ও Impact Plus নামে আরো দুটি কার্যক্রম সফলতার মুখ দেখতে যাচ্ছে।LSBE কার্যক্রমের মাধ্যমে এ উপজেলার ৫ টি ইউনিয়নে ৬ পিএফএতে ৬ থেকে ১১ বছর বয়সের শিশুদের নিয়ে ১২ টি ক্লাস পরিচালিত হচ্ছে প্রতিটি ক্লাসে ২০ জন ছাত্র/ছাত্রী নিয়ে মোট ২৪০ জন শিশু এবিষয়ে শিক্ষা অর্জন করছে।এখানে প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষার বাইরে জীবন দক্ষতা মূলক ১১ টি বিষয়ে শিক্ষা দেওয়া হচ্ছে।স্কুল সময়ের বাহিরে প্রতিটি ক্লাস সপ্তাহে দুদিন করে অনুষ্ঠিত হচ্ছে।এতে করে শিশুদের মধ্যে আত্মবিশ্বাস ও দক্ষতা বৃদ্ধি পাচ্ছে।
একি ভাবে Impact Plus ক্লাসের মাধ্যমে ১২-১৭ বছর বয়সের কিশোর-কিশোরীদের নিয়ে পরিচালিত হচ্ছে Impact Plus এর কার্যক্রম।এর মাধ্যমে কিশোর-কিশোরীরা ছোট-ছোট প্রকল্প বাস্তবায়নের মাধ্যমে সমাজসেবা ও উন্নয়ন মুলক কার্যক্রম বাস্তবায়নে সফলতা অর্জন করছে।কচুয়া এপি অফিসের মাধ্যমে বিস্তারিত তথ্য অনুসন্ধানের মাধ্যমে এ তথ্য উঠে আসে।এছাড়াও আমাদের প্রতিনিধি তাদের কার্যক্রম পরিচালনার সত্যতা যাচাইয়ের জন্য তাদের কার্যক্রম সরেজমিনে গিয়ে পরিদর্শন করেন।