কালের বিবর্তন ও আধুনিকতার ছোঁয়ায় হারিয়ে যাচ্ছে হাতে ভাজা মুড়ি

ছবি সংগ্রহে নাইমুল ইসলাম

 

আধুনিক যান্ত্রিক ব্যবস্থার কারণে মানুষের জীবন মানের অগ্রগতি ঘটেছে। বর্তমানে প্রত্যেকটি কাজেই আধুনিকতার ছোঁয়া লেগেছে। কালের বিবর্তন ও আধুনিকতার ছোঁয়ায় আজ বিলুপ্ত হয়ে যাচ্ছে প্রাচীন ঐতিহ্যের অনেক কিছুই। তেমনি ভাবে হারিয়ে যাচ্ছে গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী হাতে ভাজা মুড়ি। একসময় গ্রামের প্রতিটি বাড়িতেই শীতের মৌসুমে মুড়ি ভাজার ধুম পড়ে যেত। যা এখন আর নেই বললেই চলে। বর্তমানে কারখানায় মুড়ি উৎপাদিত হওয়ায় হারিয়ে যাচ্ছে সুস্বাদু হাতে ভাজা দেশি মুড়ি।

তবে এখনো বগুড়া শাজাহানপুর উপজেলার কিছু কিছু বাড়িতে তৈরি হয় হাতে ভাজা মুড়ি। ছবিটি শাজাহানপুর উপজেলার মোল্লা বাড়ি থেকে তোলা হয়েছে। তারা বাজারে বিক্রির উদ্দেশ্যে নয় বরং নিজেরা বাড়িতে খাবার জন্য তৈরি করছেন। প্রতি বছর শীত কালে হাতে ভাজা মুড়ি তৈরি করেন বলে জানিয়েছেন। বর্তমানে হাতে ভাজা এই মুড়ির বাজার পুরোপুরি আধুনিক কল-কারখানার আর নামি দামি কোম্পানির দখলে।

শুধু শহর অঞ্চলেই নয় গ্রাম অঞ্চলেও প্রতিটি বাড়ির মুড়ি যান্ত্রিক তৈরী মুড়ির দখলে রয়েছে। গ্রাম-বাংলার প্রতিটি মানুষের কাছে মুড়ির কদর থাকলেও হাতে ভাজা মুড়ি মেলে না। হাতে ভাজা মুড়ি আমাদের একটি হারিয়ে যাওয়া ঐতিহ্য। এটা এক ধরনের শিল্প। হাতে ভাজা মুড়ির সাধ সত্যিই অতুলনীয়। যা আজ বিলুপ্তির পথে চলে গেছে।

অলটাইমনিউজ/খালিদ