“কুমিল্লা হাফ ম্যারাথন-২০২১” অনুষ্ঠিত

হাছান আল মাহমুদ,কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি:

‘ভবিষ্যতের জন্য ঐতিহ্যকে সংরক্ষণ করুন’ এ প্রতিপাদ্যকে ধারণ করে অনুষ্ঠিত হয়েছে কুমিল্লা হাফ ম্যারাথন-২০২১। শনিবার (২৫ ডিসেম্বর) সকাল সাড়ে ৬টায় ময়নামতি জাদুঘর থেকে এ ম্যারাথন শুরু হয়ে ব্লু ওয়াটার পার্কে শেষ হয়। এতে তিনটি ভিন্ন ক্যাটাগরিতে ৩৮০ জন প্রতিযোগী অংশ নেন।
কুমিল্লা রানার্স ও কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুবি) প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের যৌথ আয়োজনে অনুষ্ঠিত এ ম্যারাথনে বিজয়ীদের হাতে ক্রেস্ট ও মেডেল প্রদান করা হয়।
এতে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এমরান কবির চৌধুরী। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ হুমায়ুন কবির। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন একাডেমি (বার্ড) এর যুগ্ম পরিচালক মোঃ আব্দুল মান্নান, কুমিল্লা জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক নাজমুল আহসান ফারুক রুমেন, সিসিএন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান মোঃ তারিকুল ইসলাম চৌধুরী ও কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের ২৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ ফজল খান।
এবারের ম্যারাথনে ৫ কিলোমিটার পুরুষ ক্যাটাগরিতে প্রথম হয়েছেন সাগর আহমেদ, দ্বিতীয় হয়েছেন ফয়সাল মিয়া এবং তৃতীয় হয়েছেন সাইফুল্লাহ বিন কাদির। ৫ কিলোমিটার নারী ক্যাটাগরিতে প্রথম হয়েছেন অদিতি সরকার, দ্বিতীয় হয়েছেন ফারহিন চৌধুরি, তৃতীয় হয়েছেন উম্মে শুভ।
২১.১ কিলোমিটার পুরুষ ক্যাটাগরিতে প্রথম হয়েছেন আশরাফুল আলম কাশেম, দ্বিতীয় হয়েছেন ফখরুল ইসলাম এবং তৃতীয় হয়েছেন আশরাফুল ইসলাম। ২১.১ কিলোমিটার নারী ক্যাটাগরিতে প্রথম হয়েছেন রেজোয়ানা পারভিন, দ্বিতীয় হয়েছেন তামান্না আফরিন মিতুল, তৃতীয় হয়েছেন নুসরাত ই জাহান।
এছাড়া ১০ কিলোমিটার ক্যাটাগরিতে অনিবার্য কারণবশত ফলাফল স্থগিত করা হয়েছে।
কুমিল্লা রানার্স ও কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুবি) প্রত্নতত্ত্ব বিভাগ ছাড়া ম্যারাথন আয়োজনে সহযোগী হিসাবে ছিলেন আঞ্চলিক পরিচালকের কার্যালয়, প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তর, কুমিল্লা এবং ময়নামতি জাদুঘর কর্তৃপক্ষ।
পৃষ্ঠপোষক ছিলো ব্লু ওয়াটার পার্ক, মালেদা গ্রুপ, ছন্দু হোটেল এন্ড রেস্টুরেন্ট, ব্লুপ আইসক্রিম, চরণ জুগল এবং ব্যাঙ্গএক্সপ্রেস।
উল্লেখ্য, কুমিল্লা রানার্স ২০১৮ সাল থেকে মানুষকে মানসিক ও শারীরিক ভাবে সুস্থ রাখার জন্য ‘জীবনের জন্য দৌড়, সুস্বাস্থ্যের জন্য দৌড়’ স্লোগানকে সামনে রেখে সারাবছর বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনা করছে।