ছয় দোকানে চুরি হলো এক রাতে

নিউজ রুমঃ

যশোরের চৌগাছা বাজারে এক রাতে ছয় দোকানে চুরির ঘটনা ঘটেছে। শনিবার ভোর রাত ছয়টার দিকে শহরের ৫টি গার্মেন্টস ও একটি কৃষি পার্টসের দোকানে এই চুরি হয়।

সিসিটিভির ফুটেজে চোরদের দেখা গেলেও তাৎক্ষণিকভাবে শনাক্ত করতে পারেনি স্থানীয়রা ।

পুলিশ সিসিটিভির ফুটেজ সংগ্রহ করেছে। চুরির প্রতিবাদে চৌগাছা শহরের ব্যবসায়ীরা বিক্ষোভ করেন। এরপর বিকেলে ব্যবসায়ীদের সঙ্গে মতবিনিময় করে চৌগাছা থানা পুলিশ।

চৌগাছা শহরের এ্যানি সুপার মার্কেটের ঢাকা ফ্যাশন নামে একটি দোকানের ক্যাশ ভেঙে প্রায় ৪০ হাজার টাকা, সাক্স টেইলার্সের প্রায় ছয় হাজার টাকা, সবুজসাথী বস্ত্রবিতান থেকে ২৫ হাজার টাকা এবং কামিল মাদরাসা সড়কে কৃষি পার্টসের দোকানের ক্যাশবাক্স ভেঙে প্রায় সাত হাজার টাকা চুরি করে নিয়ে যায় চোরেরা।

এছাড়া এ্যানি সুপার মার্কেটের বাবুল গার্মেন্টস ও পাশের মার্কেটের মায়ের আঁচল নামে দুটি গার্মেন্টসের দোকানের সাটার উঁচু করে ভেতরে প্রবেশ করতে না পেরে চলে যায় চোরেরা।

এ বিষয়ে বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক হাজী ইবাদৎ হোসেন বলেন, বাজারের নাইটগার্ডরা ফজরের আজানের সময় ডিউটি শেষ করে চলে যান। ফজরের জামায়াত হয় ৬টার পর। সিসিটিভি ফুটেজ দেখে বোঝা যায় মুসল্লিরা যখন নামাজে দাঁড়িয়েছেন অথবা নামাজ শেষে চলে গেছেন ঠিক সেই সময়ে এ চুরির ঘটনা ঘটেছে।

চৌগাছা থানার ওসি সাইফুল ইসলাম সবুজ বলেন, সিসিটিভিতে দেখে বোঝা যায় ছিঁচকে চোরেরা এই চুরির ঘটনা ঘটিয়েছে। সিসিটিভি ফুটেজ ব্যবসায়ী ও কর্মচারীদের দেখানো হবে। ফুটেজ দেখে কেউ না কেউ চোর শনাক্ত করতে পারবেন। যে কোনো মূল্যে চোর ধরার জন্য পুলিশি অভিযান শুরু হয়েছে। আশা করছি এই চোর অবশ্যই ধরা সম্ভব হবে।