জাতিসংঘে ভোটাধিকার ফিরে পাচ্ছে ইরান

জাতিসংঘে বকেয়া পরিশোধ করার পর ভোটাধিকার ফেরত পাচ্ছে বলে জানিয়েছেন জাতিসংঘে নিযুক্ত ইরানের স্থায়ী প্রতিনিধি মাজিদ তাখতে রাভানচি।

জাতিসংঘে বকেয়া পরিশোধে ইরান দক্ষিণ কোরিয়ায় আটকে থাকা অর্থ ব্যবহার করেছে।খবর রয়টার্সের।

দক্ষিণ কোরিয়ার কাছে ইরানের ৭০০ কোটি ডলার পাওনা রয়েছে। এই পাওনা অর্থের মধ্যে থেকে এক কোটি ৮০ লাখ মার্কিন ডলার জাতিসংঘকে দিয়েছে দক্ষিণ কোরিয়া। দক্ষিণ কোরিয়ার অর্থ মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে রোববার এ তথ্য জানানো হয়।

জাতিসংঘে নিযুক্ত ইরানের স্থায়ী প্রতিনিধি মাজিদ বলেছেন, ইরান জাতিসংঘের সদস্য হিসেবে সদস্যপদের ফি নিয়মিত পরিশোধ করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। কিন্তু দুঃখজনকভাবে আমেরিকার অবৈধ নিষেধাজ্ঞার কারণে ইরান এ নিয়ে দ্বিতীয়বার জাতিসংঘকে অর্থ প্রদানে সমস্যার সম্মুখীন হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, মার্কিন নিষেধাজ্ঞার কারণে ইরানে ওষুধ, চিকিৎসা সরঞ্জাম ও নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যসহ বিভিন্ন উপাদান সংগ্রহে সমস্যায় পড়েছে। শুধু তাই নয়, এ নিষেধাজ্ঞা জাতিসংঘের ওপরও প্রভাব ফেলেছে।

সম্প্রতি সময়মতো সদস্যপদের ফি পরিশোধ না করায় ইরানসহ আট দেশের ভোটাধিকার স্থগিত করেছিল জাতিসংঘ।

ইরান দক্ষিণ কোরিয়ার মাধ্যমে নিজের সেই বকেয়া পরিশোধ করল। আমেরিকার নিষেধাজ্ঞার কারণে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ইরানের বিপুল পরিমাণ অর্থ আটকে আছে।