দিনাজপুরে ভয়াবহ ট্রেন দূর্ঘটনায় নিহত ৩

ইমরান হোসাইন, ফুলবাড়ি (দিনাজপুর) প্রতিনিধি:
দিনাজপুরের বিরামপুর উপজেলায় ট্রেনের সঙ্গে প্রাইভেটকারের ধাক্কায় তিনজন নিহত হয়েছেন। ওই ট্রেনটি প্রাইভেটকারটিকে ধাক্কা দিয়ে ৫০ গজ দূরে টেনে নিয়ে যায় বলে জানা গেছে।

বুধবার সকাল পৌনে ৭টার দিকে উপজেলার ঘোড়াঘাট রেলগেট এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

তাৎক্ষণিকভাবে নিহতদের মধ্যে একজনের পরিচয় পাওয়া গেছে। তিনি হলেন— পার্বতীপুর মধ্যপাড়ার শাহপাড়া গ্রামের আব্দুল হালিম শাহের ছেলে হাফিজুর রহমান শাহ (৪০)।

বিরামপুর থানার ওসি সুমন কুমার মহন্ত জানান, বিরামপুর শহরের দক্ষিণ রেলগেটে (ঘোড়াঘাট রেলগেট) রেললাইনের ওপর দিয়ে দিনাজপুর-গোবিন্দগঞ্জ আঞ্চলিক মহাসড়ক অবস্থিত। ওই মহাসড়ক দিয়ে দিন-রাত হাজার হাজার যানবাহন চলাচল করে থাকে। এই লাইন দিয়ে ট্রেন যাতায়াতের সময় রেলের ই/১০১সি নং গেটের দুই ধারে বেরিয়ার ফেলানো হয়। কিন্তু গত দুদিন ধরে বেরিয়ার বিকল হওয়ায় ট্রেন আসা-যাওয়ার সময় সেখানকার গেটম্যান সাইফুল্লা দুই ধারে দড়ি টাঙিয়ে গেট বন্ধ করে দিয়ে মহাসড়ক দিয়ে চলাচলকারী যানবাহন আটকানোর চেষ্টা করেন।

বুধবার সকাল পৌনে ৭টার দিকে ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা কুড়িগ্রাম এক্সপ্রেস আন্তঃনগর ট্রেনটি ওই লাইন দিয়ে আসার আগে গেটম্যান দড়ি টাঙিয়ে গেট বন্ধ করে দেন। কিন্তু ঘন কুয়াশায় ও দড়ি দেখতে না পেয়ে পার্বতীপুর থেকে জয়পুরহাটগামী একটি মারুতি প্রাইভেটকার রেললাইনের ওপর উঠে যায়। এ সময় সময় ট্রেন ওই প্রাইভেটকারকে ধাক্কা দিয়ে প্রায় ৫০ গজ দূরে ঠেলে নিয়ে যায়। এতে প্রাইভেটকারটি দুমড়েমুচড়ে তিন যাত্রী ঘটনাস্থলেই নিহত হন। তবে দুর্ঘটনার আগেই প্রাইভেটকারচালক পালিয়ে যান।

রেলের হিলি আইসির সাব-ইন্সপেক্টর মহিদুল ইসলাম, জানান, নিহতদের মধ্যে একজনের পরিচয় পাওয়া গেলেও অপর দুজনের পরিচয় জানা যায়নি।