বাগেরহাটে সড়ক দুর্ঘটনায় আরও ১ জনের মৃত্যু, মোট নিহত ৪

বাগেরহাটের ফকিরহাটে যাত্রীবাহী মাহেন্দ্র ও ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে ৪ জন মাদ্রাসা শিক্ষার্থী নিহত হয়েছেন। এদের মধ্যে ৩ জন ঘটনাস্থলে এবং ১ জন উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেওয়ার পথে মারা গেছেন। আহত আরও ৩ জন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

হাইওয়ে পুলিশ সূত্রে জানা যায়, শনিবার (৮ জানুয়ারি) দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে খুলনা-মোংলা মহাসড়কে ফকিরহাট উপজেলার কাটাখালী মুনষ্টার জুট মিলের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে। খুলনায় সন্ধ্যাকালীন আন্তর্জাতিক ক্বিরাত সম্মেলন শেষে ছাত্ররা থ্রি-হুইলার মাহেন্দ্রযোগে মাদরাসায় ফিরছিলেন। এরা সবাই বাগেরহাট সদর উপজেলার হাকিমপুর কওমি মাদরাসার ছাত্র।

দুর্ঘটনায় ঘটনাস্থলে নিহতরা হলেন- বাগেরহাট সদর উপজেলার রনজিৎপুর গ্রামের হোসেন আলীর ছেলে আব্দুল্লা আল মাহামুদ (২৫), জেলার রামপাল উপজেলার ঝনঝনিয়া গ্রামের ফেরদাউস আলীর ছেলে আব্দুল গফুর (১৪), সাতক্ষীরা জেলার কালীগঞ্জ উপজেলার মালেখা গ্রামের আশরাফ আলীর ছেলে সালাউদ্দিন (১৭) এবং ঢাকায় নেওয়ার পথে মারা যান ফকিরহাট উপজেলার পিলঙ্গ ইউনিয়নের সাটের বটতলা এলাকার আবু বকর শেখের ছেলে শাকিব হাসান (১৭)। একসাথে এত ছাত্রের অকাল মৃত্যুতে মাদ্রাসার শিক্ষক ও সহপাঠীদের মধ্যে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

হাকিমপুর মাদ্রাসার মুহতামিম মাওলানা আব্দুল মাবুদ বলেন, খুলনা আলিয়া কামিল মাদ্রাসায় আন্তর্জাতিক ক্বিরাত সম্মেলনে অংশগ্রহণ শেষে তাঁরা রাতে খুলনা থেকে মাহেন্দ্রেযোগে মাদ্রাসার উদ্দেশ্যে রওনা দেন। ঘটনাস্থলে পৌঁছালে মোংলা থেকে ছেড়ে আসা খুলনাগামী একটি ডাম্পট্রাকের সঙ্গে মাহেন্দ্রের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়।নিহত শিক্ষার্থীরা মাদ্রাসার মেধাবী শিক্ষার্থী ছিলেন বলে তিনি আজকের পত্রিকাকে জানান।

কাটাখালী হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ আলী জানান, দুর্ঘটনার পর পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে ৩জনের মরদেহ কাটাখালী হাইওয়ে থানায় নিয়ে আসেন এবং ২ জন গুরুতর আহতকে ঢাকায় প্রেরণ করা হয়। এদের মধ্যে শাকিব নামের একজন পথে মারা গিয়েছে বলে শুনেছি। মরদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। দাফন শেষে নিহতের পরিবার থেকে মামলার করার কথা আছে। ডাম্পট্রাকটি পালিয়ে যাওয়ায় কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি। তবে ট্রাকটি শনাক্ত করার চেষ্টা চলছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, ঘন কুয়াশার কারণে এ দুর্ঘটনা ঘটেছে।
অলটাইমনিউজ/খালিদ