ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট হাসপাতালে

ডেক্স নিউজ:
পেটে ব্যথার কারণে সাও পাউলোর একটি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জেইর বোলসোনারো। অন্ত্রের সমস্যা থেকেই তার পেটে ব্যথা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। আর মাত্র ৯ মাস পরেই দেশটির পরবর্তী নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। তার আগেই বোলসোনারোর সার্জারির প্রয়োজন হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

টিভি নেটওয়ার্ক গ্লোবোতে প্রেসিডেন্ট বোলসোনারোর বেশ কিছু ফুটেজ প্রকাশ করা হয়েছে। সেখানে দেখা গেছে ৬৬ বছর বয়সী বোলসোনারো বেশ কয়েকজনকে সঙ্গে নিয়ে প্লেন থেকে নামছেন। সাও পাউলোতে তাদের প্লেনটি অবতরণ করে। এরপরেই তাকে ভিলা নোভা স্টার হাসপাতালে নেওয়া হয়।

হাসপাতালের বেডে শুয়ে থাকা একটি ছবি নিজেই টুইটারে পোস্ট করেছেন এই ডানপন্থি নেতা। সে সময় তিনি জানান যে, পেটের ভেতরে কিছু সমস্যার কারণে তাকে হয়তো সার্জারি করাতে হতে পারে।

২০১৮ সালে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রচারণায় সময় পেটে ছুরিকাঘাতের শিকার হন বোলসোনারো। সে সময় থেকেই তার বেশ কিছু স্বাস্থ্য সমস্যা দেখা দিচ্ছে। সে বছরই নির্বাচনে জয়ী হয়ে প্রেসিডেন্ট হিসেবে ক্ষমতা গ্রহণ করেন তিনি। ওই বছর থেকে এখন পর্যন্ত তাকে কমপক্ষে চার বার সার্জারি করতে হয়েছে।

বোলসোনারোর চিকিৎসক অ্যান্তনিও লুইজ মেসিডো বলেন, তার পেটের কিছু পরীক্ষা নিরীক্ষা করা হবে। ২০১৮ সাল থেকেই বোলসোনারোর চিকিৎসা করে আসছেন অ্যান্তনিও।

এক টুইট বার্তায় বোলসোনারো জানিয়েছেন, রোববার দুপুরের খাবার গ্রহণের পর থেকেই অসুস্থ বোধ করছিলেন তিনি। এরপর হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পর তার নাক দিয়ে খাবার গ্রহণের জন্য একটি টিউব লাগানো হয়।

সোমবার বোলসোনারোর কার্যালয় থেকে জানানো হয়েছে যে, তিনি এখন সুস্থ আছেন। তার চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, তার অবস্থা এখন স্থিতিশীল। তাকে হয়তো আরও কিছুদিন হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে হবে।