মালয়েশিয়ার ৭ রাজ্যে বন্যা

মালয়েশিয়ার সাত রাজ্যে আবার বন্যা দেখা দিয়েছে। এরই মধ্যে হাজার হাজার মানুষকে নিরাপদ আশ্রয়ে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। গত দুই সপ্তাহ ধরে চলা ভারি বৃষ্টির কারণে দেশটির বন্যা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হচ্ছে না। মালয়েশিয়ার জাতীয় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা সংস্থা এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। রোববার (২ জানুয়ারি) ব্যাংকক পোস্টের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

সংস্থাটি এক বিবৃতিতে জানায়, মালয়েশিয়ার কেলান্তান, তেরেঙ্গানু, পাহাং, জোহর, মালাক্কা, নেগেরি সেম্বিলান ও সাবাহ এলাকায় আবার বন্যা দেখা দিয়েছে। এসব এলাকা থেকে আট হাজার ৭২৭ জন ১২৮টি ত্রাণ কেন্দ্রে আশ্রয় নিয়েছেন।

মালয়েশিয়াজুড়ে গত মাস থেকে বন্যা পরিস্থিতি বিরাজ করছে। টানা ব্ন্যার কারণে এক লাখ ২৫ হাজার ৪৯০ জনকে নিরাপদ আশ্রয়ে সরিয়ে নেওয়া হয়েছিল। তাদের মধ্যে এক লাখ ১৭ হাজার ৭০০ জন বাড়িতে ফিরেছেন।

মালয়েশিয়ার পূর্ব উপকূলে অক্টোবর থেকে মার্চের মধ্যে মৌসুমি বৃষ্টি হয়। তবে গত বছরের ডিসেম্বরের ১৭ তারিখ থেকে অস্বাভাবিক বৃষ্টি শুরু হয়। যা এখনো অব্যাহত আছে। বন্যায় এখন পর্যন্ত ৫০ জন নারী-পুরুষ মারা গেছেন। নিখোঁজ রয়েছেন দুই জন।

দেশটির আবহাওয়া দপ্তর আবার ভারি বৃষ্টির সতর্কতা জারি করেছে। অন্যদিকে জাতীয় দুর্যোগ নিয়ন্ত্রণ কেন্দ্রও বন্যা মোকাবিলায় ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়েছে। এর আগে ১৮ ডিসেম্বর ২০২১ মালয়েশিয়ার আবহাওয়া বিভাগ পূর্ব উপকূল, মধ্য ও উত্তরাঞ্চলের বেশ কয়েকটি নিম্নাঞ্চলের জন্য বন্যা সতর্কতা জারি করেছিল।