মোংলায় ৬৫ টি অবৈধ স্থাপনা গুড়িয়ে দেওয়া হলো

বাগেরহাট প্রতিনিধি:
নিজস্ব জায়গায় অবৈধ দখলদারদের বিরুদ্ধে উচ্ছেদ অভিযান শুরু করেছে মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষ। কর্তৃপক্ষের প্রশাসনিক বিভাগ বৃহস্পতিবার (১০ ফেব্রুয়ারী) সকাল ১১টা থেকে বন্দরের শিল্পাঞ্চলের দ্বিগরাজ এলাকায় এ অভিযান শুরু করে।

এদিন দুপুর পর্যন্ত ৬৫ টি কাঁচা-পাকা ঘর ও ব্যাবসা প্রতিষ্ঠান উচ্ছেদ করা হয়। অভিযান পরিচালনা করেন মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শোভন সরকার। এসময় বন্দরের পুলিশ, আনসার, ফায়ারসার্ভিস, নিরাপত্তা কর্মী এবং বন্দরের সম্পত্তি শাখার কর্মকর্তা-কর্মচারী ও বন্দরের উর্ধতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

উচ্ছেদ অভিযানের প্রথম দিনে বন্দরের দ্বিগরাজ এলাকার ৬৫ টি স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়। বন্দর কর্তৃপক্ষের প্রায় ২ হাজার ২শ একর জমির মধ্যে প্রায় ৭ শতাধিক অবৈধ স্থাপনা তৈরী করে মানুষ ব্যাবসা প্রতিষ্ঠানসহ বিভিন্ন কাঁচা-পাকা ঘরবাড়ী তৈরী করে দখল করে রেখেছিলেন তারা। যার ফলে বন্দরে জানজটসহ কার্যক্রমে প্রতিবন্ধকতা সৃস্টি হওয়ার ফলে এ উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করার সিদ্ধান্ত গ্রহন করে বন্দর কর্তৃপক্ষ।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শোভন সরকার বলেন, দীর্ঘদিন যাবত বন্দরের নিজেস্ব জমিতে কিছু দখলদাররা ঘরবাড়ী ও ব্যাবসা প্রতিষ্ঠান তৈরী করে দখলে নিয়েছিল। যাতে বন্দর চ্যানেল জাহাজ চলাচলে নৌযান কর্তৃক প্রতিবন্ধকতা অপসারণ, বন্দর এলাকায় অবৈধ অনুপ্রবেশ বন্ধসহ বন্দরের নিজস্ব জায়গা দখল, অবৈধ স্থাপনা, দোকানপাট গড়ে তোলাদের বিরুদ্ধে নিয়মিত অভিযান পরিচালিত হচ্ছে। অভিযানের আওতায় বৃহস্পতিবার মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের দিগরাজ এলাকায় অবৈধ দখলমুক্ত করা হয়েছে।