‘রেমিট্যান্সে প্রণোদনা’ নিয়ে ভার্চুয়াল আলোচনা

কানাডার ক্যালগেরিতে অ্যালবার্টার প্রথম বাংলা অনলাইন পোর্টাল প্রবাস বাংলা ভয়েসের আয়োজনে প্রধান সম্পাদক আহসান রাজীব বুলবুলের সঞ্চালনায় ‘রেমিট্যান্সে প্রণোদনা বৃদ্ধি ও বিদেশে সরকারি পদক্ষেপ’ শীর্ষক এক ভার্চুয়াল আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ও এবিএম কলেজের প্রতিষ্ঠাতা প্রেসিডেন্ট ড. আবদুল বাতেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ কানাডা অ্যাসোসিয়েশন অব ক্যালগেরির সহ-সভাপতি মো. কাদির, সিলেট অ্যাসোসিয়েশন অফ ক্যালগেরির সভাপতি রূপক দত্ত, অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশি জিওলজিস্ট অফ আলবার্টার প্রেসিডেন্ট খালিছ আহমেদ এবং আথাবাচকা ইউনিভার্সিটির গ্র্যাজুয়েট অ্যাসোসিয়েশনের প্রতিনিধি রাসেল রূপক।

এ সময় প্রবাসী বক্তারা রেমিট্যান্সে প্রণোদনা আড়াই শতাংশ বৃদ্ধি করায় সন্তোষ প্রকাশ করে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে রেমিট্যান্স যোদ্ধাদের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকার পাশাপাশি বিদেশে ও দেশে তাদের সু্যোগ সুবিধার বিষয়ে সরকারকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ও এবিএম কলেজের প্রতিষ্ঠাতা প্রেসিডেন্ট ড. আবদুল বাতেন বলেন- প্রবাসে থাকলেও দেশকে ভালোবাসতে হবে, দেশের সেবায় এগিয়ে আসতে হবে, তা যেকোন ক্ষেত্রেই হোক না কেন।
বাংলাদেশ কানাডা অ্যাসোসিয়েশন অব ক্যালগেরির সহ-সভাপতি মো. কাদির বলেন- শুধু প্রণোদনা বৃদ্ধি নয়, রেমিট্যান্স যোদ্ধাদের সর্বক্ষেত্রে দেশে ও বিদেশে সুযোগ সুবিধার পরিমাণ ও আরো বাড়াতে হবে।

সিলেট অ্যাসোসিয়েশন অব ক্যালগেরির সভাপতি রূপক দত্ত বলেন- দেশের দক্ষ জনশক্তি গড়ে তোলার কোনো বিকল্প নেই। বিদেশে সরকারের প্রতিনিধিদের প্রবাসীদের সহযোগিতায় এগিয়ে আসতে হবে। মনে রাখতে হবে আজকের বাংলাদেশের পেছনে প্রবাসীদের প্রত্যক্ষ সহযোগিতা রয়েছে।

অ্যাসোসিয়েশন অফ বাংলাদেশি জিওলজিস্ট অফ আলবার্টার প্রেসিডেন্ট খালিছ আহমেদ বলেন- দেশকে, পরিবার-পরিজনকে ভালোবেসেই আমরা রেমিট্যান্স পাঠাই; বাংলাদেশ সরকারকেও আমাদের কথা মনে রাখতে হবে। পাশাপাশি এটাও আমাদের লক্ষ্য রাখতে হবে যেন আমাদের দেশ পরনির্ভরশীল হয়ে না যায়।

অ্যালবার্টার প্রথম বাংলা অনলাইন পোর্টাল ‘প্রবাস বাংলা ভয়েস’ এর প্রধান সম্পাদক আহসান রাজীব বুলবুল দেশ-বিদেশের প্রত্যেক শ্রেণীর মানুষকেই মানবসেবার প্রত্যয়ে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

সূত্র:যুগান্তর