হাতিয়ায় নির্বাচনী প্রচারণায় প্রতিপক্ষের হামলা,পুলিশ সহ আহত ১৫

আবিদ উল্যাহ জাকের,হাতিয়া উপজেলা প্রতিনিধি:

নোয়াখালীর দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ার ১ নম্বর হরণী ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনি প্রচারণার সময় স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীর ওপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। এতে এক পুলিশ কর্মকর্তাসহ অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছেন।

শনিবার (২৮ মে) বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে হাতিয়া বাজারে ওই হামলার ঘটনা ঘটে।

হামলায় পুলিশের বিশেষ শাখার সহকারী উপ-পরিদর্শক কাউসার, ১ নম্বর হরণী ইউনিয়নের সদস্য প্রার্থী সালা উদ্দিন, মাহাবুবুর রহমান, আলমগীর হোসেন, ছিদ্দিক উল্যাহ, স্বতন্ত্র ঘোড়া প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থক নিজাম উদ্দিন, মো. হানিফ, সানা উল্যাহ, মো. নিজামসহ অন্তত ১৫ জন আহত হন।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, আগামী ১৫ জুন হাতিয়ার ১ নম্বর হরণী ইউনিয়নের নির্বাচনকে সামনে রেখে শনিবার বিকেলে প্রচারণায় নামেন ঘোড়া প্রতীকের স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী মুশফিকুর রহমান মোর্শেদ। পরে তারা মোটরসাইকেল শোডাউন নিয়ে হাতিয়া বাজারে গেলে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আক্তার হোসেনের সমর্থকরা পথরোধ করে অতর্কিত হামলা চালায়।

ওই সময় জেলা পুলিশের বিশেষ শাখার (ডিএসবি) সহকারী উপ-পরিদর্শক কাউসার ছাড়াও কয়েকজন মেম্বার প্রার্থী ও স্বতন্ত্র ঘোড়া প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থীর লোকজন আহত হয়। সেই সঙ্গে হামলাকারীরা অন্তত পাঁচটি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করে। পরে খবর পেয়ে অতিরিক্ত পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী মুশফিকুর রহমান মোর্শেদ অভিযোগ করেন, নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আক্তার হোসেনের লোকজন তার প্রচারণায় ওই হামলা চালায়। এতে কয়েকজন মেম্বার প্রার্থীসহ তার অন্তত ১৪ জন সমর্থক আহত হয়।

তবে এ বিষয়ে যোগাযোগের চেষ্টা করেও অভিযুক্ত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আক্তার হোসেনের বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

হামলার সত্যতা নিশ্চিত করে হাতিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমির হোসেন জানান, হামলার ঘটনায় কারা জড়িত তা নিশ্চিত করতে অভিযান চালাচ্ছে পুলিশ। তবে বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।
Alltimenews /razu